fbpx

মাস্টার কার্ড বা ডুয়েল কারেন্সী কার্ড দিয়ে বুস্ট করা মানেই কি ফেসবুক মার্কেটিং?

এক সময় ডিজিটাল মার্কেটিংটা শিখার জন্য অনেকেই বিভিন্ন ব্লগ, টিউটোরিয়াল ঘাটতো, কেউ কেউ বেসরকারীভাবে প্রশিক্ষণ নিয়েছে। আর বর্তমানে সরকারী পর্যায়ে প্রশিক্ষণ তো আছেই।

কিন্তু এখন ডিজিটাল মার্কেটিং শিখতে এতো কিছু করা লাগে না। একটা মাস্টার কার্ড অথবা একুয়া কার্ড, আর ডলার ইনপুট, তারপরে ফেসবুক অ্যাড একাউন্ট দিয়ে অ্যাড সাবমিট করলেই হয়ে যায় ডিজিটাল মার্কেটিং! এটা নিয়ে এতো পড়ালেখা কি দরকার মাস্টার কার্ড বা ডুয়েল কারেন্সী কার্ড দিয়ে বুস্ট করা মানেই কি ফেসবুক মার্কেটিং?

মাস্টার কার্ড বা ডুয়েল কারেন্সী কার্ড দিয়ে বুস্ট করা মানেই কি ফেসবুক মার্কেটিং?

এটাই এখনকার বাস্তবতা! যার কারনে ফেসবুকের নিত্য নতুন আপডেটে সেল নিয়ে অনেক হয়ে উঠতেছে দিশেহারা। যারা মনে করে একজন ডিজিটাল মার্কেটিং কন্সাল্টেন্ট আর একজন সেলারের মধ্যে পার্থক্য হচ্ছে এটাই যে একজনের মাস্টার কার্ড আছে আর আরেকজনের একুয়া কার্ড, তারা আসলে এই ডিজিটাল মার্কেটিং পজিশনের এর গ্লোবাল ভ্যালুটা জানে না। ডিজিটাল মার্কেটিংটা যদি এতোই সহজ হতো তবে বড় বড় গ্লোবাল কোম্পানিগুলো ডিজিটাল মার্কেটারদের হায়ার করতো না। অফিসের পিয়নরে দিয়েই করিয়ে ফেলতো।

আমার মূল কথা হচ্ছে অল্প স্বল্প জেনেই মার্কেটিং এক্সপার্ট ভেবে বিজনেসের ক্ষতি করবেন না। সেলারদেরও প্রপার মার্কেটিং নলেজ থাকাটা জরুরী নাহলে বিজনেস বড় হলে তখন কাউকে দিয়ে মার্কেটিং করাতে গেলে আপনি তাকে প্রপার মনিটর করতে পারবেন না। আপনাকে লামছাম বুঝাবে মার্কেটিং এ দায়িত্বে থাকা ব্যক্তি। এখন বিজনেস ছোট আছে বলে অল্প স্বল্প মার্কেটিং নলেজ জানাটাকে বিশাল বড় সম্পদ মনে করছেন। কিন্তু বিজনেসের যখন উত্থান পতন হবে তখন বুঝবেন আপনার এই নলেজ কিছুই না। এখনই তো অনেকে ই-ক্যাব গ্রুপে পোস্ট দিচ্ছে বুস্ট করি সেল হয় না, রেস্পন্স কম ইত্যাদি ইত্যাদি। একজন ডিজিটাল মার্কেটার কিন্তু  আপনার এই সিচুয়েশনকে তার নলেজ, এক্সপেরিয়েন্স, অ্যানালাইসিস দিয়ে বিভিন্ন যৌক্তিক ব্যাখ্যা দাড় করাতে পারবে এবং অনেক ক্ষেত্রে একটা সাজেশন দিতে পারবে সলিউশনের জন্য। কিন্তু যারা মনে করছে কার্ড থাকলেই ডিজিটাল মার্কেটার হওয়া যায় তারা কিন্তু স্বল্প নলেজ থাকার কারনে সিচুয়েশন বুঝতে পারছে না তাই ই-ক্যাব গ্রুপে পোস্ট দিচ্ছে। কেউ কেউ তো আতংকিত হচ্ছে এই ভেবে ফেসবুক দিয়ে হয়তো বিজনেস শেষ। এখন হয়তো গুগলে পা বাড়াতে হবে।

আসলে মার্কেটিং এ অনেক চেঞ্জ আসছে, আসবে এবং এটার সাথেই তাল মিলিয়ে চলতে হবে। এর জন্য দরকার আপডেটেড থাকা, স্ট্যাডি করা।

ফেসবুক অ্যাডে ইন্টারেস্ট অ্যাড করে সাবমিট করলেই ফেসবুক মার্কেটিং হয় না। কখনো কি ডেমোগ্রাফি, বিহাভিয়র, অ্যাড প্লেসমেন্ট, ফেসবুক পিক্সেল – এই অপশনগুলো নিয়ে ভেবেছেন?

এই অপশন বেচারাদের তো মন খারাপ এক ইন্টারেস্ট অপশন ছাড়া আর কোন দিকে আপনারা তাকান না মাস্টার কার্ড বা ডুয়েল কারেন্সী কার্ড দিয়ে বুস্ট করা মানেই কি ফেসবুক মার্কেটিং?

Add a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.